10.5 C
Los Angeles
জানুয়ারি ৩০, ২০২৩
News All Bangladesh
Uncategorized

লাকসামে ইউনিয়ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি পন্থী একাদিক স্বতন্ত্র প্রার্থী 


এফ.ওমরঃ

 লাকসাম উপজেলার তিনটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী তিনজন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে রয়েছেন ৫ জন। এর মধ্যে দুটি ইউনিয়নে ‘স্বতন্ত্র প্রার্থী’ হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন বিএনপির দুই নেতা ও সাবেক ইউপির চেয়ারম্যান। 
প্রার্থীরা তাদের সমর্থকদের সঙ্গে নিয়ে গত বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) উপজেলা নির্বাচন অফিস ও রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়ন দাখিল করেন। শনিবার (৩ ডিসেম্বর) যাচাই-বাছাই শেষে  প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র  বৈধ ঘোষণা করেন উপজেলা নির্বাচন অফিস ও রিটার্নিং কর্মকর্তা রাজিবুল করিম। 
এ-র মধ্যে বাইক দক্ষিণ ইউনিয়নে পরিষদে চেয়ারম্যার পদে ‘স্বতন্ত্র প্রার্থী’ হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের লাকসাম উপজেলার সাবেক সহ সভাপতি আনোয়ার হোসেন। তিনি ২০১৮ সালে একই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে ছিলেন। অপরদিকে মুদাফরগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নে ‘স্বতন্ত্র প্রার্থী’ হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন বিএনপির নেতা শাহ আলম। তিনি লাকসাম উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ও বিএনপির থেকে নির্বাচিত বৃহত্তর মুদাফরগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান। 
জানতে চাইলে লাকসাম উপজেলা  বিএনপির আহবায়ক আবদুর রহমান বাদল বলেন, দলীয়ভাবে বিএনপি আওয়ামী লীগের অধীনে কোনো নির্বাচনে যাবে না। দল থেকে নেতাকর্মীদের সব ধরনের নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।তিনি আরো বলেন, কেউ যদি দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে নির্বাচনে অংশ নেয়, তবে দলের হাইকমান্ড এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। আমরা বিষয়টি কেন্দ্রে জানাবো।

জানা যায়, উপজেলা তিনটি ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে  বাকই দক্ষিণ ইউনিয়ন থেকে দ্বিতীয় বারের মতো  আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আবদুল আউয়াল তিনি এর আগে বিএনপি থেকে দুই বার মনোনীত প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান হয়েছেন। এবার তার সঙ্গে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে  প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ শাখার সাবেক ছাত্র লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান জন। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে রয়েছেন আরও দুই জন (প্রবাসী) জহিরুল ইসলাম ও ঠিকাদার মোহাম্মদ বদরুল হাছান মজুমদার। এদিকে মুদাফরগঞ্জ উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে দ্বিতীয় বারের মতো আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী  শাহীদুল ইসলাম শাহিন।অপরদিকে মুদাফরগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়ন থেকে দ্বিতীয় বারের মতো  আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আবদুর রশিদ সওদাগর।তার সঙ্গেস্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে  প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য মনোনয়ন জমা দেন  ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক ও বর্তমানে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সদস্য মোহাম্মদ ফারুক হায়দার। তিনি  বৃহত্তর মুদাফরগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মোশাররফ হোসেনের বড় ছেলে। ঋণখেলাপি হওয়ায় শনিবারে যাচাই-বাছাই দিনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ ফারুক হায়দারের মনোনয়নপত্র বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।
শনিবার (৩ ডিসেম্বর) যাচাই-বাছাই শেষেপ্রার্থীদের মনোনয়নপত্র  বৈধ ঘোষণা করেন উপজেলা নির্বাচন অফিস  ও রিটার্নিং কর্মকর্তা রাজিবুল করিম  তিনি যুগান্তরকে জানান, বাকই দক্ষিণ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, মুদাফরগঞ্জ উত্তর ইউপিতে ২ জন ও মুদাফরগঞ্জ দক্ষিণ  ইউপিতে ১ জন সহ মোট ৮জন। এছাড়াও  সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৪ ও সাধারণ সদস্য পদে ৪৯ জন মনোনয়নপত্র  বৈধ ঘোষণা করা হয়। আপীল দায়েরের শেষ তারিখ ৬ ডিসেম্বর, আপীল নিস্পত্তি ৯ ডিসেম্বর, প্রার্থীতা প্রত‍্যাহারের শেষ তারিখ ১০ ডিসেম্বর, প্রতীক বরাদ্ধ ১১ ডিসেম্বর এবং ভোটগ্রহণ ২৯ ডিসেম্বর। সকল কেন্দ্রে ইভিএম এর মাধ‍্যমে সকাল সাড়ে ৮টা থেকে বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে।

Related posts

Several Facts About Online dating services

rana riaj

How to Get a Mail Order Woman

rana riaj

জননেতা আবুল কালামের সাথে সাবেক ছাত্র নেতা জাহাঙ্গীরের সৌজন্য সাক্ষাৎ

Riaj uddin Rana

Leave a Comment