19.1 C
Los Angeles
সেপ্টেম্বর ২০, ২০২০
News All Bangladesh
শিক্ষা

শিক্ষাব্যবস্থা এক অথচ শিক্ষকদের পরিচয় ভিন্ন

 

কেউ সরকারি, কেউ বেসরকারি।
কিন্তু শিক্ষাদান পদ্ধতি খুবই দরকারি।
কারো বেতন কম, কারো বেশি।
কারো মনে কষ্ট, কেউ বা খুশি।
এ অবস্থার প্রভাব,
মেধাবী শিক্ষার্থী তৈরিতে অভাব।
একই নিয়মের শিক্ষাব্যবস্থা হলে,
ভিন্ন নিয়মের শিক্ষক কেন বলে।
একই সিলেবাস, একই বই,
একই পড়া, একই মান।
শুধু নামেই ব্যবধান।
কেউ সরকারি, কেউ বেসরকারি।
বৈষম্য দূর করা যাদের দায়িত্ব,
তারা বড় বড় অফিসার সরকারি।
তাদের ভাবনা বেসরকারি সবাই,
আমাদের দয়ায় বেঁচে থাক ভাই।
একই বইয়ের একই সিলেবাসের
যদি সমান পড়ানো হয়।
কি দরকার বৈষম্য তৈরি করে
যুগের পর যুগ এমন পরিচয়।
বেসরকারি শিক্ষকদের যদি এমপিও এর বেতন সরকারকেই দিতে হয়,
সামান্য বৈষম্য সৃষ্টি করে,
কেন ক্ষুন্ন করা হয় সরকারের ভাব পরিচয়।
আসুন এ মানবিক ভাবনা মোরা ভাবি,
একই সিলেবাস, একই বই, একই পড়া।
শুধু কিছু বেতন কম দিয়ে,
কেন এই বৈষম্য তৈরি করা।
বন্ধ করা হউক এমন বৈষম্য ও বঞ্চনা।
জাতি গঠনে যাদের অবদান সবচেয়ে বেশি,
তাদের সম্মানে মোরা একই স্লোগানে আসি।
আমরা শিক্ষক, আমরা শিক্ষক।
নয় সরকারি, নয় বেসরকারি।
আমাদের একই প্লাটফর্মে আসা খুবই দরকারি।

Related posts

বরুড়ার কৃতি সন্তান মাহিনুর আক্তারের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর স্বর্ণপদক লাভ

Riaj uddin Rana

সিবিএমসিবি-তে ডাঃ শুভ প্রিমিয়ার লীগ-২০১৭ উদ্বোধন

zoshim

আমাদের মানুষ হিসাবে দেখুন- মানববাধিকারে যৌনকর্মী,হিজরা, বিহারী ও হরিজন

zoshim

Leave a Comment