13.1 C
Los Angeles
এপ্রিল ৮, ২০২০
News All Bangladesh
উন্নয়ন খবর এক্সক্লুসিভ কুমিল্লা জেলার খবর বরুড়া উপজেলা

উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় কুমিল্লা জেলা পরিষদ

উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় কুমিল্লা জেলা পরিষদ জেলার সকল ক্ষেত্রে কাজ করে যাচ্ছে। গত তিনটি অর্থবছরে এ জেলার বিভিন্ন উপজেলা এলাকায় এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট (এডিপি) ও জেলা পরিষদের নিজস্ব তহবিলের অর্থায়নে এ পরিষদ ৬৮ কোটি ২২ লাখ ৪৫ হাজার টাকার ৩ হাজার ৪১টি উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করেছে। এরই মধ্যে গত দু’টি অর্থবছরের কাজ সম্পন্ন হয়েছে এবং চলতি অর্থবছরের কিছু কাজ চলমান রয়েছে। কুমিল্লা জেলা পরিষদ কার্যালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
জেলা পরিষদ সূত্র জানায়, চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরে এ পরিষদের অধীন জেলার বিভিন্ন উপজেলায় এডিপি ও পরিষদের নিজস্ব তহবিলের অর্থায়নে ৯২৫টি প্রকল্পের মাধ্যমে ১৯ কোটি ৩৫ লাখ ৯৭ হাজার টাকার উন্নয়ন বরাদ্দ গ্রহণ করা হয়। এরমধ্যে এডিপির ২৫৩টি প্রকল্পের মাধ্যমে ৫ কোটি ১০ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং জেলা পরিষদের নিজস্ব তহবিল থেকে ৬৭২টি প্রকল্পের মাধ্যমে ১৪ কোটি ২৫ লাখ ৪৭ হাজার টাকার উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়নাধীন রয়েছে। এর আগে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ২৩ কোটি ৫৯ লাখ ৪৭ হাজার টাকায় ১ হাজার ২২টি প্রকল্প, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ২৫ কোটি ২৭ লাখ ১ হাজার টাকায় ১ হাজার ৯৪টি প্রকল্প এডিপি ও নিজস্ব অর্থায়নে বাস্তবায়ন করা হয়েছে। সূত্র জানায়, এসবের মধ্যে রয়েছে জেলার ১৭টি উপজেলা এলাকার বিভিন্ন স্থানে মসজিদ, মন্দির, কবরস্থান, স্কুল, কলেজ, মাদরাসা, কালভার্ট, রিটেইনিং ওয়াল, ঈদগাহ, টয়লেট, ঘাটলা, রাস্তা, ড্রেন, মাজার, বাজার, যাত্রী ছাউনি, পাঠাগারসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প কাজ।

এছাড়া ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা অংশের দুই প্রান্তের দাউদকান্দি ও চৌদ্দগ্রামের শেষ সীমানায় বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল ও গেট নির্মাণ করা হয়েছে। জেলার সদর দক্ষিণ, চান্দিনা, বরুড়া, চৌদ্দগ্রাম, ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলায় আধুনিক মানের ডাকবাংলো, দাউদকান্দি উপজেলার জুরানপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ভবন, চান্দিনা মহিলা কলেজের প্রশাসনিক ভবন, সদর দক্ষিণ উপজেলার ডাকাতিয়া নদীর ওপর ফুটওভার ব্রিজ ও মুরাদনগর উপজেলা সদরে স্মৃতিসৌধ নির্মাণের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। চলতি অর্থবছরে জেলার লাকসামের মুদাফফরগঞ্জ, মুরাদনগর উপজেলা সদর ও বাঙ্গরা বাজারে প্রায় ৩৯ কোটি টাকা ব্যয়ে বহুতল বিশিষ্ট ৩টি মার্কেট এবং কুমিল্লা নগরীর কান্দিরপাড়ে বহুতলবিশিষ্ট বঙ্গবন্ধু ল কলেজ নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে। এ সময়ে গরিবদের মাঝে প্রায় ৪০ লাখ টাকা অর্থ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।
কুমিল্লা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও নৌ-বাহিনীর সাবেক প্রধান আবু তাহের জানান, ‘জেলার বিভিন্ন এলাকার সংসদ সদস্য ও জেলা পরিষদের স্থানীয় সদস্যদের মাধ্যমে চাহিদা অনুযায়ী উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করে এসব প্রকল্প যথাসময়ে বাস্তবায়ন করা হয়েছে। চলতি অর্থবছরের কিছু প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে, যা নিয়মিত মনিটরিং করা হচ্ছে। এছাড়া ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলা পর্যায়ে দৃষ্টিনন্দন করে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালসহ নানা স্থাপনা নির্মাণ করা হয়েছে। জেলা পরিষদ কর্তৃক উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে এ জেলাকে দেশের মধ্যে একটি মডেল জেলায় উন্নীতকরণের জন্য আমাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।’

সূত্রঃ দৈনিক মানবজমিন

Related posts

বরুড়ায় ড্রাগ সুপারের আগমনে ফুলেল শুভেচ্ছা দেওয়া হয়

Riaj uddin Rana

বরুড়ায় জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ও পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত.রোটা. ওমর ফারুকঃ

Riaj uddin Rana

বরুড়ায় শেষ দিনে একজনের প্রার্থীতা প্রত্যাহার

Riaj uddin Rana

Leave a Comment